ইউটিউব কি? কেন ইউটিবিং করবেন? বিস্তারিত

আসসালামু আলাইকুম, বন্ধুরা আশাকরি ভালো আছো। bdtechhouse24 এর পক্ষ থে আজকের পর্বে সবাইকে জানাই স্বাগতম।

আমরা প্রয়োজনে বা অপ্রয়োজনে প্রতিদিন ইউটিবে বিভিন্ন বিষয় সার্চ করে থাকি। দেখে থাকি বিভিন্ন ভিডিও। তুমি জানো কি এই ইউটিউব থেকেও ইনকাম করা যায়। কিন্তু কিভাবে? হ্যা বন্ধুরা আজ আমরা ইউটিউব কি? কেন ইউটিবিং করবেন? এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

ইউটিউব নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করতে গেলে প্রথমেই সবার মনে যে প্রশ্ন টি জাগে তা হলো

ইউটিউব কি?

ইউটিউব হলো গুগলের একটি ওয়েব সাইট। যেখানে গুগল তার ইউজারদের ফ্রীতে ভিডিও দেখার ও আপলোড করার সুযোগ দিয়েছে। শুধু ভিডিও দেখা আর আপলোড করা ই নয় সেখান থেকে ইউনিক কন্টেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য রয়েছে ভালো পরিমাণ ইনকামের সুবিধা।

নিশ্চই এখন মনে প্রশ্ন জাগছে ইনকাম হবে কিভাবে?

ইনকামের বেশ কিছু পদ্ধতি রয়েছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু পদ্ধতি নিচে তুলে ধরা হলো।

১ গুগল এডসেন্সঃ
ইউটিউব থেকে ইনকামের সবচেয়ে ট্রাষ্টেড পদ্ধতি হলো গুগল এডসেন্স। প্রায় সকল সফল ইউটিউবার এডসেন্স দিয়ে ইনকাম করে থাকেন।

গুগল এডসেন্স দিয়ে ইনকাম হয় কিভাবে?
আপনার চ্যানেলে যখন ১০০০ সাবস্ক্রাইব ও ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচিং টাইম হয়ে যাবে তখন আপিনি এডসেন্সের জন্য আবেদন করতে পারবেন। এবং আপনার চ্যানেলে যদি কোন কপিরাইট ভিডিও না থাকে তাহলে অবশ্যই আপনার আবেদন এপ্রুভ হবে। এবং আপনার ভিডিওতে এড দেখানো শুরু হবে। এবং আপনার ভিজিটররা ঐ এডে যখন ক্লিক করবে তখন আপনার ইনকাম হবে।

২ নিজের পণ্য বিক্রিঃ
নিজের পণ্য বিক্রির মাধ্যমেও ইউটিউব থেকে ইনকাম করা যায়। অর্থাৎ অনেক কাষ্টমার পাওয়া যায়। তাই সেলও বেশি হয়। আর যেহেতু সেল বেশি হয় সেহেতু লাভও বেশি।

নিজের পণ্য বিক্রির মাধ্যমে কিভাবে ইনকাম করবেন?
আপনার পণ্য সম্পর্কে ভিডিও বানিয়ে আপনার চ্যানেলে আপলোড দিন। এতে যে ভিজিটর আপনার অই ভিডিও দেখবে সে চাইলে আপনার কাছ থেকে অই পণ্য কিনতে পারে। এতে আপনার সেল বেশি হবে তাই লাভও বেশি হবে।

৩ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং
অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং বলতে বুঝায় অন্য কোন কোম্পানির পণ্য বিক্রয় করতে সহযোগীতা করা। অর্থাৎ কোন কোম্পানির পণ্য নিয়ে আলোচনা করে ডিস্ক্রিপশনে তার লিংক দিতে হবে এবং সে লিংকে ক্লিক করে যদি কেউ ঐ পণ্যটি কেনে তাহলে আপনাকে কোম্পানি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা দিবে।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কিভাবে করবেন?
অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং নিয়ে আমি আগামীতে আরো বিস্তারিত পোস্ট নিয়ে আসব আশাকরি সবাই সে পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন।

৪ সরাসরি বিজ্ঞাপনঃ
কোন এডস কোম্পানির কাছ থেকে এড নেওয়ার চেয়ে কোন কোম্পানির কাছ থেকে এড নিয়েও বসাতে পারেন আপনার ব্লগে। যাতে অই কোম্পানি ও আপনার মাঝে যে ৩য় এডস কোম্পানি ছিল তাকে কোনো টাকা দেওয়া লাগবে না। এতে উভয়েরই লাভ।

কিভাবে সরাসরি বিজ্ঞাপন পাবেন?
এজন্য আপনাকে একটু কষ্ট করতে হবে। অর্থাৎ আপনার আশেপাশে থাকা ছোটখাটো কোম্পানি গুলো খুজে বের করে তার ওনার বা ম্যানেজারের সাথে কথা বলতে হবে। অথবা আপনি আপনার প্রতিটি ভিডিওতে আপনার ফোন নম্বর সহ কন্টাক ইনফরমেশন দিয়ে রাখবেন আর বলবেন আপনার পণ্য বা সেবার বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন। এই জাতীয় কিছু কথা। তো দেখবেন কোম্পানি আপনাকে খুজে নিবে।

৫ স্পন্সরঃ
স্পনসরড ভিডিও বলতে বুঝায় যখন আপিনি টাকার বিনিময় আপনার চ্যানেলে কোন ভিডিও করবেন সে ভিডিও। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন কোম্পানি তাদের পণ্য প্রচারের জন্য বিভিন্ন চ্যানেলে টাকা দিয়ে তাদের ভিডিও পাবলিশ করিয়ে থাকে।

স্পন্সর কোথায় পাবেন?
গুগলে সার্চ করলে এমন অনেক ওয়েবসাইট পাওয়া যায় যেখান থেকে আপনি স্পন্সর পেতে পারেন।


এখন নিশ্চই জানতে ইচ্ছে হচ্ছে আপনি কি ভাবে ইনকাম করবেন?
তো চলুন আপনি কিভাবে ইনকাম করবেন জেনে নেই। হ্যা বন্ধু আপনি কিভাবে ইনকাম করবেন এটা সম্পূর্ণ নির্ভর করে আপনার উপর। আপনার দক্ষতার উপর। আপনার ভালো লাগার উপর। তবে আমি আপনাদের সাজেস্ট করবো প্রাথমিক পর্যায়ে আপনারা গুগল এডসেন্সের জন্য ট্রাই করেন আশাকরি ভালো ফলাফল পাবেন।

কি বিষয়ে ভিডিও বানাবেন? (অর্থাৎ নিশ কি?)
যদি সঠিক নিশ নিয়ে কাজ করা যায় কেবলমাত্র তাহলেই সফলতা আসে। অর্থাৎ ইনকাম করা যায়। আর ইকামের জন্য সঠিক নিশ নির্বাচন করা অত্যন্ত জরুরি। পরবর্তিতে এ বিষয়ে বিস্তারিত পোস্ট করা হবে।

কিভাবে ভিডিও প্রচার করবেন?
ভিডিও তৈরি করে আপলোড করলেই সব শেষ হয়ে যায় না। এরপর আসে ভিডিও প্রচার করার সেকশন। আপনি যদি ভালো পরিমানে ভিউয়ার পেতে চান তাহলে ভিডিও শেয়ারের বিকল্প নাই। সে জন্য আপনি চাইলে একটি ফেসবুক পেজ খুলে আপনার ইউটিব চ্যানেলের ভিডিওর লিংক অই পেজে শেয়ার করে ভালো ভিউয়ার পেতে পারেন। শুধু ফেসবুক নয় আরো অনেক সোসাল সাইট গুলোতে ভিডিওর লিংক শেয়ার করতে পারেন।

শেষ কথাঃ
আপনি যদি ইনভেস্টমেন্ট ছাড়া আর্ন করতে চান তাহলে ইউটিউব হতে পারে আপনার আয়ের অন্যতম উৎস। তো বন্ধুরা ভাবনা চিন্তা বাদ দিয়ে কাজে লেগে পরুন আর নিজেকে ইউটিউবার হিসেবে গড়ে তুলুন।

কোন ভুল হলে অবশ্যই জানাবেন আমরা আপনার নাম উল্লেখ পূর্বক শুধরে নিব।

নিয়মিত টেক রিলেটেড সকল নিউজ, টিপস ও ট্রিকস পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব কর। ফেসবুক পেজে লাইক দেও ও টুইটারে ফলো কর। এবং তোমার আইডিয়া আমাদের জানাতে কমেন্ট কর অথবা matubbormdkawsar@gmail.com ঠিকানায় মেইল কর।

Post a Comment

0 Comments